ধর্ষণ ও গর্ভপাতে সহযোগিতার অভিযোগে এটিভি সংবাদের সম্পাদক গ্রেফতার - adsangbad.com

সর্বশেষ

Tuesday, November 17, 2020

ধর্ষণ ও গর্ভপাতে সহযোগিতার অভিযোগে এটিভি সংবাদের সম্পাদক গ্রেফতার



নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীর উত্তরায় ধর্ষণ ও গর্ভপাতে সহযোগিতার অভিযোগে করা মামলায় কথিত অনলাইন নিউজপোর্টাল 'এটিভি সংবাদ' এর সম্পাদক এস এম জামান ওরফে মনিরুজ্জামানকে গ্রেপ্তারের পর আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। এ মামলার মূল আসামি ওই পোর্টালের কথিত রিপোর্টার জুয়েল রানা পলাতক।

ধর্ষণ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উত্তরা পূর্ব থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইব্রাহিম মোল্লা জানান, ধর্ষণ ও গর্ভপাতে সহযোগিতার অভিযোগে ভুয়া সাংবাদিক মনিরুজ্জামানকে দক্ষিণখানের ফরিদ মার্কেটের ফরিদ কমপ্লেক্স থেকে সোমবার (১৬ নভেম্বর) ভোর চারটার দিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি নিজেকে তথাকথিত অনলাইন 'এটিভি সংবাদ' এর সম্পাদক দাবি করেন।

এসআই ইব্রাহিম বলেন,গ্রেপ্তার হওয়া মনিরুজ্জামান সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন জায়গায় চাঁদাবাজি, প্রতারণাসহ নানা অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে লিপ্ত ছিলেন। তার বিরুদ্ধে রাজধানীর বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা ও ওয়ারেন্ট রয়েছে।

উত্তরা ৪ নম্বর সেক্টরের ২১ নম্বর সড়কের ১২ নম্বর বাসায় মনিরুজ্জামানের তথাকথিত পোর্টালের অফিসে এক তরুণী স্টাফকে ধর্ষণ করেন ভুয়া সাংবাদিক জুয়েল রানা। ওই তরুণী গর্ভবতী হলে তাকে জোরপূর্বক গর্ভপাত ঘটানো হয়। ওই ঘটনায় গত ২১ সেপ্টেম্বর ওই ভুক্তভোগী তরুণী উত্তরা পূর্ব থানায় মামলা করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বলেন, আগামী রোববার গ্রেপ্তার হওয়া মনিরুজ্জামানকে সাতদিনের রিমান্ডে নিতে আদালতে আবেদন জানানো হবে।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, চাকরির সুবাদে জুয়েল রানার সঙ্গে ওই ভুক্তভোগী নারীর পরিচয় হয়। পরিচয়ের পর উত্তরা ৪ নম্বর সেক্টরের ২১ নম্বর সড়কের ১২ নং বাসার 'এটিভি সংবাদ' অফিসে গত ২৯ ফেব্রুয়ারি ভুক্তভোগী নারীকে প্রথম জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন জুয়েল। পরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বার বার শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করেন। ভুক্তভোগী নারী শারীরিক সম্পর্কে অসম্মতি জানালে জুয়েল ফের বিয়ের আশ্বাস দিয়ে গত ০৭ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ১০টায় শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করেন। এরপর ওই নারীকর্মী গর্ভবতী হন।

এমতাবস্থায় তিনি ওই অফিসে গিয়ে জুয়েলকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে তিনি ও তার সম্পাদক মনিরুজ্জামানসহ সহযোগীরা জোরপূর্বক গর্ভপাতের ওষুধ সেবন করান। ওই নারী রক্তপাতের কারণে অসুস্থ হয়ে পড়লে অফিসের বস মনিরুজ্জামানের গাড়িতে করে তাদের দুই সহযোগী মনিষা (৪০) ও সুমন পাটোয়ারী (৪৫) দক্ষিণখানের একটি বাসায় নিয়ে সুমনের স্ত্রীকে দিয়ে গর্ভপাত ঘটান। বাসাটি ছিল সুমন পাটোয়ারীর।

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here

Pages