মাস্ক না পরলে ৫ হাজার টাকা জরিমানা, কঠোর হচ্ছে সরকার - adsangbad.com

সর্বশেষ

Monday, November 23, 2020

মাস্ক না পরলে ৫ হাজার টাকা জরিমানা, কঠোর হচ্ছে সরকার

 

অনলাইন ডেস্ক : আসন্ন শীতে করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় স্বাস্থ্যবিধি মানা নিশ্চিত করতে কঠোর পদক্ষেপ নিচ্ছে সরকার। মাস্ক না পরলে জরিমানা হতে পারে পাঁচ হাজার টাকা পর্যন্ত।

আজ সোমবার দুপুরে সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে সরকারের এ অবস্থানের কথা জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে সারা দেশে আরো বেশি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে বলেও জানান তিনি।

গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে যোগ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সম্পর্কে সজাগ করে দিয়ে এ সংকট মোকাবিলায় বিভিন্ন দিক-নির্দেশনা দেন। বিশেষ করে মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করার তাগিদ দেন তিনি।

বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব ড. খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় মাস্ক ব্যবহারে আরো কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী কিছু নির্দেশনাও দিয়েছেন।

'প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজকেও বলেছেন, যেভাবেই হোক মানুষকে আরো বেশি বেশি করে প্রচার করো, ফোর্স করো, যেভাবেই হোক, মানুষ যেন মাস্ক ইউজ (ব্যবহার) করে। মাস্ক যদি ইউজ না করে তাহলে কিন্তু কোনো কিছুই ভ্যাকসিন বলেন, ওষুধ বলেন, কোনো কিছুতেই কাজ হবে না।’ বলেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের হিসাব অনুযায়ী দেশের অন্য স্থানের তুলনায় বিগত ১৫ দিনে রাজধানীতে রোগীর সংখ্যা হয়েছে দ্বিগুণ। করোনাভাইরাস মহামারির এ পরিস্থিতির মধ্যে যারা মাস্ক পরছেন না, ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাদের কঠিন সাজা দেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ার করে দেন খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘মাস্কের বিষয়টা খুবই স্ট্রংলি আসছে। আমাদের কালকে কমিশনাররা জানান এবং সাত দিন ধরে জানাচ্ছেন তারা ম্যাসিভলি ফাইন করছেন অল ওভার। কয়েক হাজার লোককে কাল ফাইন করা হয়েছে সারা দেশে। এটা আমরা বলছি যে, আরো এক সপ্তাহ দেখতে বলেছি। ফাইনেও না হলে মানুষকে আরো মোটিভেশন করো। তারপর আরেকটু স্ট্রং পানিশমেন্টে যেতে হবে।’

স্ট্রং মানে কী জেল? জানতে চাইলে সচিব বলেন, ‘দেখা যাক। হয়তো ফাইনও বাড়াইয়া দিতে পারে। এক হাজার টাকা, ৫০০ টাকা ফাইন করল সেটাকে পাঁচ হাজার টাকা করে দিল।’

খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানান, মোবাইল কোর্ট যাঁরা পরিচালনা করবেন সঙ্গে মাস্ক নিয়ে যাবেন যাতে মানুষকে জরিমানা করার সঙ্গে মাস্ক দেওয়া যায়।

এ ছাড়া এক প্রশ্নের জবাবে সচিব জানান, বিদেশে অর্থ পাচারের সঙ্গে জড়িতদের ব্যাপারে পররাষ্ট্র ও আইন মন্ত্রণালয় এবং গোয়েন্দা সংস্থাগুলো কাজ করছে।

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here

Pages