রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার আশুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সাহাবউদ্দিন মাদবর - adsangbad.com

সর্বশেষ

Monday, October 12, 2020

রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার আশুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সাহাবউদ্দিন মাদবর

নিজস্ব প্রতিনিধি :  শীগ্রই দেশে আসছে ইউপি নির্বাচন আর এ সময়ে দলীয় কোন্দলটাকে উস্কে দিচ্ছে কিছু কিছু নেতা। এখন  কাউকে হেয় করতে পারলেই যেন তাদের লাভ। নির্বাচনে যেন না আসতে পারে, কাউন্সিলে দলীয় গুরুত্বপূর্ণ পদ যেন না পায় সেই চেষ্টাই অব্যাহত রেখেছে তারা । সাভার উপজেলার আশুলিয়া ইউনিয়ের চেয়ারম্যান সাহাব উদ্দিন মাদবর তেমনি এক রাজনীতির প্রতিহিংসার শিকার। রাজনীতির মাঠে হেরে যাওয়া কিছু ব্যাক্তি বিশেষ রীতিমতো উঠে পড়ে লেগেছে তার বিরুদ্ধে। আজ এই অভিযোগ কাল ঐ মামলা তারা যেন আদ পেটা খেয়ে লেগেছে। আর এই সকল মিথ্যা ভিত্তিহীন মনগড়া কল্পকাহিনী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করে একটি কুচক্রী মহল তার বিরুদ্ধে প্রতি নিয়ত চালিয়ে যাচ্ছে অপপ্রচার । কুচক্রী ঐ মহলটি সাহাব উদ্দিন মাদবরের ইমেজ নষ্ট করে তাকে কুলশীত করার চেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। 

বাস্তবে দেখা যায় অধূমপায়ী ধার্মিক, ঢাকা জেলার  শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান সাহাব উদ্দিন মাদবরের চরিত্র হননের মিশনেও নেমেছে তারা। গ্রাম্য পলিটিক্স যেমনভাবে রচিত হয় এটা যেন তারই সংস্করণ। ঐ কুচক্রীমহলটি একের পর এক মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে কিন্ত সৃষ্টিকর্তার অপার মহিমায় সব মামলাগুলোই শেষ পর্যন্ত মিথ্যা মামলা হিসেবে চিন্হিত হয়েছে।  সরেজমিনে গিয়ে আশুলিয়া ইউনিয়ের বেশকিছু ওয়ার্ড ঘুরে দেখা যায় উন্নয়নের বাস্তব চিত্র।

যে রাস্তায় এক সময় মানুষ ঠিকভাবে চলতে পারতো না। সে রাস্তায় এখন আরসিসি ডালাই করা  দিব্বি চলছে বড় বড় মালবাহী কার্গো ।

তার উন্নয়নমুখে কর্মকান্ডে ওয়ার্ড মেম্বার সহ সন্তুষ্ট সাধারণ জনগণ।

তিনি যখন তার উন্নয়নমুখী কর্মকান্ডের জন্য সারা উপজেলায় প্রশংশিত হচ্ছেন তখনি ঐ কুচক্রী মহলটি তাকে হেয় প্রতিপন্ন করার চেষ্টায় লিপ্ত।

এ প্রসঙ্গে আশুলিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাহাব উদ্দিন মাদবর জানান, আমি রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার। একটি কুচক্রী মহল একের পর এক বিভিন্ন অপকৌশল অবলম্বন করে মিথ্যা বানোয়াট ভিত্তিহীন মামলা ও সংবাদ প্রকাশ করে আমাকে হেয় প্রতিপন্ন করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। ওরা চাচ্ছে আমি যেন আমার উন্নয়নমুখি কর্মকাণ্ড থেকে দূরে সরে যাই। অত্র ইউনিয়ে আমার উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড দেখে তারা ঈর্ষান্বিত হয়ে আমার এহেন মিথ্যা অভিযোগ নাই যা তারা করেনি।

আর একে একে সব মিথ্যা গুলোই নির্বাসিত হয়ে সত্য প্রতিষ্ঠা হয়েছে। 

সাংবাদিক ভাইদের বলবো যেনে শুনে সত্য লিখুন তাতে আমার কোন সমস্যা নাই। কিন্তু মিথ্যা তথ্যের ভিত্তিতে সংবাদ পরিবেশন কতটা যুক্তি যুক্ত তা আপনারাই বিবেচনা করুন। আপনারা জাতির বিবেক আর জাতির বিবেক জাতির সামনে সত্য আর বস্তুনিষ্ঠ তথ্য পরিবেশন করবে এটাই বাস্তব কিন্তু যাচাই-বাচাই ছাড়া জাতির সামনে মিথ্যা তথ্য ভিত্তিতে সংবাদ প্রকাশ করে কাউকে হেয় করবে এটা কেউ প্রত্যাশা করে না।

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here

Pages