রাজধানীর দক্ষিনখানে পিটিয়ে নারী সাংবাদিকের সাংবাদিকের হাত ভেঙ্গে দিল সন্ত্রাসীরা - adsangbad.com

সর্বশেষ

Saturday, April 18, 2020

রাজধানীর দক্ষিনখানে পিটিয়ে নারী সাংবাদিকের সাংবাদিকের হাত ভেঙ্গে দিল সন্ত্রাসীরা


নিজস্ব প্রতিনিধি: রাজধানীর দক্ষিণখান থানা মাজার এলাকায় বকেয়া বেতনের দাবীতে ইনসাফ গার্মেন্টস শ্রমিকদের আন্দোলনের সংবাদ সংগ্রহকালে তমা নামের এক মহিলা সাংবাদিকের উপর হামলা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানাযায় গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা আনুমানিক ৫.৩০ঘটিকারসময় দক্ষিণ খান থানার চালাবন এলাকার আকবর টাওয়ারে অবস্থিত ইনসাফ গার্মেন্টসের শ্রমিকদের ২ মাসের বেতন ভাতার দাবীতে গার্মেন্টসের বাহিরে আন্দোলন করে। খবর পেয়ে দৈনিক মুক্ত খবর পত্রিকার সাংবাদিক শিমুলী আক্তার নীলু, অনলাইন নিউজ পোটাল ক্রাইম অনুসন্ধানের সাংবাদিক তমা ঘটনাস্থলে গিয়ে বিষয়টি জানতে চাইলে কারখানার ভিতরে থাকা বহিরাগত সন্ত্রাসী বাবুলসহ আকবর টাওয়ারের মালিকের জামাতা হান্জালা ও জহিরখানসহ সাংবাদিক তমাকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে তার বাম হাত ভেঙে দেয়। এসময় ভাড়াটে সন্ত্রাসী বাবলু তমাকে প্রান নাশের হুমকি দিয়ে বলেন পরবর্তীতে যদি এই গার্মেন্টসের সামনে দেখি বা এই গার্মেন্টসের বিষয়ে কোন পত্রিকায় কোন প্রকার সংবাদ প্রকাশ করে,তাহলে মেরে লাশ গুম করে দেয়া হবে। পরে স্থানীয় লোকজন ও দৈনিক মুক্ত খবর পত্রিকার বিশেষ প্রতিনিধি শিমুলী আক্তার নীলু,এইচ এম আমিনুল ইসলাম আমান,এটিভির আতিয়ার ফারুক,দৈনিক আলোর জগত পত্রিকার উত্তরা প্রতিনিধি মোঃ ফারুক আহম্মেদ ও স্থানীয় কয়েকজন সাংবাদিক তমাকে উদ্ধার করে প্রথমে টংগী সরকারি হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে ৪দিন হাসপাতালে ভর্তি থাকার জন্য বলেন । পরে তমাকে উত্তরার একটি প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় পর তমা বাদী হয়ে দক্ষিণখান থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। ঘটনাটির তদন্তের জন্য এস আই আব্দুল আজিজকে দায়িত্ব দেন।
দুইদিন অতিবাহিত হলে ও পুলিশ এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেনি এবং এ ঘটনায় জড়িতদের কোন এক অদৃশ্য কারণে পুলিশ তাদের গ্রেফতার করেনি। উক্ত ব্যাক্তি প্রকাশ্য ঘুরে বেড়াচ্ছে। 
মামলা নিয়ে পুলিশের এমন গড়িমসির কারনে নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছেন সাংবাদিক তমা।

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here

Pages